Bangla Helpline – বাংলা হেল্প লাইন

bangla helpline
সৌদি আরবে ওয়ার্ক পারমিট

সৌদি আরব বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ। এখানে বিভিন্ন খাতে প্রচুর কর্মসংস্থানের সুযোগ রয়েছে। সৌদি কোম্পানিগুলো প্রতি বছর বিভিন্ন মুসলিম দেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ করে।

কীভাবে ভিসার জন্য আবেদন করবেন:

সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসার জন্য আবেদন করতে হলে, প্রথমে আপনাকে এমন একটি সার্কুলার খুঁজে বের করতে হবে যেখানে আপনার পছন্দের কোম্পানি শ্রমিক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। সার্কুলারে উল্লেখিত নির্দেশিকা অনুসরণ করে অনলাইনে আবেদন করুন।

বেতন ও অন্যান্য তথ্য:

বেতন নির্ভর করে আপনার যোগ্যতা, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা এবং কাজের ধরণের উপর। বর্তমানে ধারণা করা হচ্ছে যে, একজন শ্রমিকের মাসিক বেতন প্রায় 1200 থেকে 1500 রিয়াল। বেশিরভাগ কোম্পানি থাকা-খাওয়ার খরচ, আকামা খরচ এবং দেশে আসা-যাওয়ার খরচ বহন করে। সপ্তাহে 6 দিন কাজ করতে হবে এবং ওভারটাইম এর জন্য অতিরিক্ত বেতন দেওয়া হয়। ভিসার মেয়াদ 2 বছর।

সোদি আরবের কোম্পানি ভিসা খরচ কত ?

সৌদি আরবে কাজের সুযোগের জন্য অনেকেই আগ্রহী। কোম্পানি ভিসা ‍এই ‍ক্ষেত্রে একটি জনপ্রিয় মাধ্যম। তবে, ভিসা প্রক্রিয়া ও খরচ সম্পর্কে সঠিক ধারণা না থাকায় অনেকেই বিভ্রান্তিতে পড়েন। ভিসা খরচ প্রায় 2,40,000 টাকা থেকে 5,00,000 টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এই খরচে সরকারি ফি, এজেন্ট ফি, বিমান ভাড়া এবং অন্যান্য খরচ ‍অন্তর্ভুক্ত।

সৌদি আরবে বাংলাদেশীদের কর্মসংস্থান:

সৌদি আরব বিশাল কর্মসংস্থানের সুযোগ ‍দেওয়ার জন্য বাংলাদেশিদের কাছে একটি জনপ্রিয় গন্তব্য। নির্মাণ, সেবা, উৎপাদন, স্বাস্থ্যসেবা এবং তথ্য প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন খাতে তাদের দক্ষতা ও পরিশ্রমের জন্য তাদের বেশ সম্মান করা হয়।সরকার নিয়মিতভাবে শ্রমিক নিয়োগের জন্য মেলা আয়োজন করে এবং ‍সঠিক ভিসা, কাজের অফার এবং দক্ষতা থাকলে আপনি সহজেই কাজের সুযোগ ‍পেতে পারেন।

সৌদি আরবে বাংলাদেশীদের কর্মসংস্থান: বর্তমান অবস্থা ও সুযোগ

সৌদি আরব দীর্ঘদিন ধরেই বাংলাদেশিদের জন্য একটি আকর্ষণীয় কর্মসংস্থান গন্তব্য। নির্মাণ, সেবা, উৎপাদন, স্বাস্থ্যসেবা এবং তথ্য প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন খাতে দক্ষতা ও পরিশ্রমের জন্য তাদের খ্যাতি রয়েছে।

সরকারি উদ্যোগ প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় নিয়মিতভাবে রিয়াদে শ্রমিক নিয়োগের জন্য মেলা আয়োজন করে। বাংলাদেশ সরকারের রিয়াদ দূতাবাস ‍কর্মসংস্থান ‍সম্পর্কিত তথ্য ও সহায়তা প্রদান করে। জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি) দক্ষ শ্রমিক প্রস্তুতিতে ভূমিকা রাখে।

সুযোগ:

সৌদি ভিশন ২০৩০ বাস্তবায়নের জন্য বিপুল পরিমাণে জনশক্তির প্রয়োজন হবে।

নির্মাণ, প্রযুক্তি, পর্যটন খাতে ‍কর্মসংস্থানের ‍সুযোগ ‍বেড়েছে।

দক্ষ ও প্রশিক্ষিত শ্রমিকদের জন্য ‍আকর্ষণীয় বেতন ও সুযোগ-সুবিধা।

আরো বিস্তারিত তথ্যে জন্য ভিজিট করুন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়: https://probashi.gov.bd/ । সৌদি আরবের অনলাইন সাইট –   Saudi Arabia Visa Online: https://visa.visitsaudi.com/Visa/Index

সঠিক প্রস্তুতি, দক্ষতা ও যোগাযোগের মাধ্যমে সৌদি আরবে বাংলাদেশিদের জন্য ‍খুব ভালো কর্মসংস্থানের সুযোগ রয়েছে। সরকার ‍এবং ‍বিভিন্ন ‍সংস্থা ‍কর্মীদের ‍সহায়তার জন্য ‍কাজ ‍করছে।